দেশে আন-অফিশিয়াল যুগের সমাপ্তি হতে চলেছে?

CrediT: ATCTOTO

ইতোমধ্যে মোটামুটি সবাই মোবাইল ফোন নিবন্ধনের খবর পেয়ে গিয়েছেন। হ্যাঁ, ভবিষ্যতে সিমের মত মোবাইল ফোনও নিবন্ধন করতে হবে, নাহলে ফোনে মোবাইল নেটওয়ার্ক চলবেনা। (আগের আর্টিকেলটি পড়তে ক্লিক করুন)

বিটিআরসির পরিকল্পনা অনুযায়ী, তিনটি ক্যাটাগরিতে মোবাইল ফোনগুলোকে ভাগ করা হবে। ব্ল্যাক, হোয়াইট ও গ্রে। ‘হোয়াইট’ বলতে বোঝানো হয়েছে বৈধভাবে আমদানি করা এবং দেশে বৈধভাবে তৈরি ফোনগুলো। ক্লোন, অনুমোদনহীন, অবৈধভাবে আমদানি ফোনগুলো ‘গ্রে’ ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত। অন্যদিকে চুরি যাওয়া ফোন, মেয়াদ উত্তীর্ণ আইএমইআই যুক্ত ফোন, নকল আইএমইআই সম্পন্ন ফোনগুলোকে ‘ব্ল্যাক’ ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

বর্তমানে বাংলাদেশের বিপুলসংখ্যক মানুষ আনঅফিসিয়াল বা গ্রে ক্যাটাগরির অবৈধ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। এর প্রধান কারণ, ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়া এসব ফোনের দাম বাজারমূল্য থেকে কম হয়। প্রশ্ন জেগেছে, সক্রিয় গ্রে ফোনগুলো নিবন্ধন করা যাবে কিনা। এ ব্যাপারে বিটিআরসি বিস্তারিত কোন তথ্য দেয়নি। তবে বিটিআরসির পরিকল্পনা অনুযায়ী সক্রিয় আনঅফিসিয়াল ফোনগুলো নিবন্ধনের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এর জন্য নির্দিষ্ট সময়সীমা দেওয়া হবে। সময় শেষ হওয়ার পর আর কোন আনঅফিসিয়াল ফোন নিবন্ধিত হতে পারবেনা। আবার বিটিআরসি এমন পদক্ষেপও নিতে পারে যেমন, নির্দিষ্ট পরিমাণ ট্যাক্স বা ফাইন দিয়ে এসব ফোনও নিবন্ধন করার সুবিধা। সকল সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করে বিটিআরসি গণমাধ্যমে জানিয়ে দেবে।

তাছাড়া দেশের বাইরে থেকে পাঠানো গিফটের ফোনের ক্ষেত্রে বিশেষ নিয়ম আসতে পারে, যেমন একজনের বহন করা নির্দিষ্ট সংখ্যক মোবাইল ফোন বাদে বাকিসব মোবাইল ফোনের জন্য ট্যাক্স দিতে হবে।

নিবন্ধনের জন্য গ্রাহককে কোথাও যেতে হবেনা, ফোনে সক্রিয় সিমটি যে নামে নিবন্ধিত থাকবে, ফোনটিও সে নামে নিবন্ধিত হয়ে যাবে এবং ঐ ফোনে শুধুমাত্র ঐ একজনের নামে নিবন্ধিত সিমই চালানো যাবে। অর্থাৎ, সিম ও ফোন উভয়ই একজনের নামে নিবন্ধিত হতে হবে।

ফোন বিক্রয়ের ক্ষেত্রে নিবন্ধন পরিবর্তন করে পুনঃনিবন্ধন করতে হবে। এ দায়িত্বের জন্য বিটিআরসি নতুন কোন সংস্থা প্রতিষ্ঠা করতে পারে কিংবা মোবাইল অপারেটরদের বলা হতে পারে।

এখন পর্যন্ত পুরোটিই পরিকল্পনা হিসেবে রয়েছে। বিটিআরসি এ পরিকল্পনায় খুব দ্রুত কাজ করছে। শীঘ্রই আসছে মোবাইল নিবন্ধন পদ্ধতি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *